ট্রেনের শেষ কামরায় ‘X’ চিহ্ন কেন থাকে জানেন? জানলে অবাক হবেন।

0
23

আমাদের দেশে ইংরেজদের সৃষ্টি করা রেল পরিসেবা দেশের জনসাধারনের কাছে এক অপরিহার্য মাধ্যম। শুধু আমাদের দেশেই নয় গোটা বিশ্বের প্রত্যেকটি দেশে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম হল এই ট্রেন। ভারতে প্রতিদিন প্রায় ৬৫ লক্ষ মানুষজন ট্রেনেই যাতায়াত করে। লোকাল ট্রেন ছাড়াও দূরে কোথাও যেতে সুবিধা রয়েছে এক্সপ্রেস ট্রেনের। স্বল্প খরচে আরামে গন্তব্যস্থলে পৌঁছানের সহজ উপায় হল এই ট্রেন।

Ad

স্টেশন থেকে ট্রেন যখন ছেড়ে যায় তখন ট্রেনের একেবারে শেষ প্রান্তে X চিহ্ন টা চোখে পড়ে। দু একবার ভাবলেও সাধারন ভাবে এক্সটিকে ডেঞ্জার বা বিপদের চিহ্ন বলা হলেও এর কিন্তু আলাদা মানে রয়েছে। আসলে ভাবনাটা কিছুটা ঠিক হলেও এটি নিরাপত্তার সঙ্গেই ওতোপ্রতো ভাবে জড়িত। ট্রেনের পিছনে এক্স চিহ্ন থাকার মানে হল- যাতে কর্তব্যরত রেলকর্মীরা বুঝতে পারেন ট্রেনের সম্পূর্ন অংশ বর্তমান কোনো লেফট বিহাইন্ড নেই। আর এর মানে হল যাত্রীরা নিরাপদ ভাবে যাতায়াত করতে পারবেন।

আরও একটি বিষয় কখনই ভাবা হয়নি হয়তো, সেটা হল LV, এক্সের পাশে একটি ছোট্ট জায়গা জুড়ে এর অবস্থান আসলে এর মানেটা হল ট্রেনটা একেবারে নিরাপদ, বিপদের ঝুঁকি নেই, এই লেখাটা খুবই গুরুত্বপূর্ন আর যদি না থাকে তাহলে বুঝতে হবে ট্রেনে বিপদের ঝুঁকিও আছে। পর্যবেক্ষনের দরকার।

আরো লক্ষ করলে দেখতে পাবেন এক্স লেখার সঙ্গে একটি ছোটো লাল বাতি আছে। যদিও এর কোনো ব্যাখ্যা নেই। এর কাজ পাঁচ মিনিট অন্তর অন্তর জ্বলে ওঠা। আগেকার দিনে তেলের সাহায্যে চললেও এই বাতি জ্বললেও এখন বিদ্যুতের সাহায্যেই জ্বলে। এর কোনো কাজ না থাকলেও এটি ঠিক সাদা হাতির মতো। তবে না থাকলে যেন বোর্ডটি অসম্পূর্ন থেকে যায়।

এক্স, এলভি ও লাল বাতি এই তিনটির সম্পর্কে এই অজানা ছোট্ট কথাগুলির মানে জানার ইচ্ছা থাকলেও সেভাবে বিস্তারিত জানার আগ্রহ দেখাননা কেউই বা জানানোর মাধ্যমই নেই।

ad

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here