নরেন্দ্র মোদী কিনলেন এই বাইকটি, দাম জানেন কত ? বাইকটির কি ধরনের সিকিউরিটি আছে জানলে অবাক হবেন…

0
41

নরেন্দ্র মোদী কিনলেন- নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদী, ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী। তাকে বলা হয় ভারতের অন্যতম সেরা প্রধানমন্ত্রী। ১৯৫০ খ্রিষ্টাব্দের ১৭ই সেপ্টেম্বর বম্বে প্রেসিডেন্সির (বর্তমান গুজরাট রাজ্যের) মহেসানা জেলার বড়নগর নামক স্থানে ঘাঞ্চী তেলী সম্প্রদায়ের এক নিম্নবর্গের পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি তাঁর পিতামাতার চার সন্তানের মধ্যে তৃতীয় ছিলেন। তাঁর পিতার নাম দামোদারদাস মূলচাঁদ মোদী ও মায়ের নাম হীরাবেন মোদী। বড়নগর রেলস্টেশনে তিনি তাঁর পিতাকে চা বিক্রি করতে সহায়তা করতেন এবং কৈশোরে বাস স্ট্যান্ডের কাছে ভাইয়ের সাথে চা বিক্রি করুতেন। পুরো পরিবার একটি ছোট ৪০ ফুট X ১২ ফুট মাপের একতলা বাড়িতে বসবাস করতেন। তিনি এই শহরেই একজন সাধারণ মানের ছাত্র হিসেবে তাঁর বিদ্যালয়ের পড়াশোনা শেষ করেন।

নরেন্দ্র মোদী কিনলেন এই বাইকটি, দাম জানেন ? বাইকটির বিশেষত্ব জানলে অবাক হবেন…

Ad

১৯৭১ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘে যোগ দেন। ১৯৮৫ খ্রিষ্টাব্দে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ মোদীকে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করায়। ২০০১ সালের ৭ই অক্টোবর মোদী গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ২০১৪ সাল পর্যন্ত তিনি গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। ২০১৩ তে তাকে বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী করা হয় ও নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে জিতে ২৬শে মে ২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদী ভারতের পঞ্চদশ প্রধানমন্ত্রীর পদে শপথ নেন।

নরেন্দ্র মোদী কিনলেন এই বাইকটি, দাম জানেন ? বাইকটির বিশেষত্ব জানলে অবাক হবেন…

গোটা পৃথিবীতে পেট্রোলিয়াম শক্তি কমে আসার সাথে সাথে বাড়ছে পেট্রোলের দাম। ফলে সাধারন মধ্যবিত্ত মানুষের জন্য বাইকে বিলাস ভ্রমনটা প্রায় অসম্ভন হয়ে উঠছে। পেট্রোলের দাম লাগাম ছাড়া হওয়ায় মানুষ বিকল্প খুঁজছে।

নরেন্দ্র মোদী কিনলেন এই বাইকটি, দাম জানেন ? বাইকটির বিশেষত্ব জানলে অবাক হবেন…

ঠিক সেই জন্যেই মিরাটের এক যুবক বানিয়ে ফেললেন ‘মোদি বাইক’। যাতে বিনা পেট্রোলেই চলবে ১০০ কিলোমিটার। আর এই ঘটনাই চমকে দিয়েছে গোটা বিশ্বের তাবড় তাবড় ইঞ্জিনিয়ারদের, কেড়ে নিয়েছে তাদের রাতের ঘুম।

ছেলেটির নাম ওয়াকার আহমেদ। ওয়াকার দিল্লি ইনস্টিটিউশন অফ টেকনোলজির অটোমোবাইলের ছাত্র। তার মায়ের দাবি ‘ওয়াকার গরীব হলেও সে সব সময় মানুষের জন্য কিছু করার কথা ভাবত’।

ওয়াকারের এই বাইকে নেই ইঞ্জিন। তারবদলে আছে জেনারেটর মোটর। এই বাইকে মাত্র ১ ঘন্টা চার্জ দিলেই হবে ফুল চার্জ, আর তার বদলে চলবে ১০০ কিমি রাস্তা। অর্থাৎ মধ্যবিত্তের কাছে এ যেন এক সুবর্ন সুযোগ। ওয়াকার জানিয়েছে বাইকটির সর্বোচ্চ গতি ঘন্টায় ৮০ কিমি।

নরেন্দ্র মোদী কিনলেন এই বাইকটি, দাম জানেন ? বাইকটির বিশেষত্ব জানলে অবাক হবেন…

ওয়াকার জানিয়েছে “আমি ছোটো থেকেই স্বপ্ন দেখতাম গাড়ি শিল্পে নতুন কিছু করার, সেখান থেকেই আমার এই চেষ্টা মাত্র। এটি কোন রেসিং বাইক নয়, তাই একজন মা-বাবা নিশ্চিন্তে তার সন্তানের হাতে তুলে দিতে পারবেন এই বাইক। আমি মোদিজির ডিজিটাল ভারতের স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে চাই, তাই আমার বাইকের নাম দিয়েছি ‘মোদি বাইক’। আর এই বাইক বানাতে আমার সময় লেগেছে প্রায় ২ মাস, আর খরচ ৭২ হাজার টাকা।”

অটোমোবাইল বিশেষজ্ঞদের দাবি অত্যাধুনিক এই বাইকের আন্তর্জাতিক বাজার মূল্য প্রায় ২০ লক্ষ টাকা মতো, সেখানে ওয়াকার মাত্র ৭২ হাজার টাকায় বানিয়ে দিয়েছে। যা সত্যিই বিশ্বয়কর। ওয়াকার চেষ্টা করছে খুব শীঘ্রই যাতে সে এই বাইক বাজারে আনতে পারে।

নরেন্দ্র মোদী কিনলেন এই বাইকটি, দাম জানেন ? বাইকটির বিশেষত্ব জানলে অবাক হবেন…

ওয়াকারের এই বাইক, অর্থাৎ মোদি বাইক তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কেও দেখিয়েছেন। শোনা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী খুবই খুসি হয়েছেন তার এই আবিষ্কার দেখে এবং তিনি একটি এই বাইক ১৫ লক্ষ টাকা দিয়ে কিনেও নিয়েছেন, রেখেছেন নিজের বাসভবনে। তবে এই খবরের সত্যতা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর কোন বিবৃতি দেয়নি।

ad

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here